যত পুরুষাঙ্গ দেখেছি সবগুলো থেকে দুর্গন্ধ বেরিয়েছে: তসলিমা

প্র’কাশিত একটি প্র’তিবেদনের প্রেক্ষিতে লেখক তসলিমা নাসরিন ফে’সবুক পেজে তাঁর কিছু ভাবনা পোস্ট ক’রেছেন। এখানে সেটি হু’বহু তুলে ধ’রা হল। হ’ঠাৎ চোখে পড়ল বাজারের একটি খবর। ৭ মা’র্চে ছাপা হওয়া খবর।

পরদিন ৮ মা’র্চ। না’রীদিবস। তা খবরটার শি’রোনাম কী? শিরোনাম ‘ম’হিলাদের গো’পনা’ঙ্গের দু’র্গন্ধের ৮ টি কারণ’।

না’রীদিবসে না’রীদের জন্য পু’রুষের প্র’তিষ্ঠান থেকে চমৎকার এক উপহার বটে! সেই আদিকাল থেকে পত্রিকায়-ম্’যাগাজিনে প’ড়ে আসছি’ রেডিও টিভিতে শু’নে আসছি ম’হিলাদের গো’পনা’ঙ্গে নাকি বি’ষম দু’র্গন্ধ।

এই দু’র্গন্ধ দূ’র ক’রতে পুরো মানবজাতি আদা জল খেয়ে লে’গেছে। কত রকমা’রি কারণ যে বের ক’রা হচ্ছে দুর্গন্ধের!

কত রকমা’রি সমাধানও বের ক’রা হচ্ছে! যো’নীর ন্যা’চারাল গন্ধকে ‘দুর্’গন্ধ’ নামে ডাকা হয়।
এই গন্ধ বিদেয় ক’রতে কত যে ক্ষ’তিকর কে’মিক্যাল বাজারে আনা হয়েছে! কেউ শুনেছে পু’রুষাঙ্গের দু’র্গন্ধের কথা?

আমি তো এ যাবৎ যত পু’রুষাঙ্গ দেখেছি’ সবগুলো থেকে দু’র্গন্ধ বেরিয়েছে। দু’র্গন্ধে আমা’র বমি আসে আসে অবস্থা হয়েছে।

পু’রুষাঙ্গের দুর্গন্ধ নিয়ে কেন মিডিয়াতে লেখালেখি’ বলাবলি হয় না? কেন গ’বেষ’ণা হয় না কী কী কারণে পু’রুষের গো’পনা’ঙ্গে দু’র্গন্ধ হয়’ কী ক’রে ওদের বি’চ্ছিরি দুর্গন্ধ দূ’র ক’রা যায়’ এ সব নিয়ে!

না’রীকেই চি’হ্নিত ক’রা হয় ডাইনি বলে’ অপয়া বলে’ নরকের দ্বার বলে’ নোং’রা আর দুর্গন্ধের আধার বলে। যেন না’রীরা লজ্জায় সংকুচিত হয়’ ভ’য়ে সিঁটিয়ে থাকে’ যেন আত্মবিশ্বা’স হা’রিয়ে ফে’লে ‘ যেন নিজেকে ঘৃণা ক’রতে শেখে।হ’ঠাৎ চোখে পড়ল বাজারের একটি খবর। ৭ মা’র্চে ছাপা হওয়া খবর। পরদিন ৮ মা’র্চ।

না’রীদিবস। তা খবরটার শি’রোনাম কী? শিরোনাম ‘ম’হিলাদের গো’পনা’ঙ্গের দুর্গন্ধের ৮ টি কারণ’ বাজার ওয়েবসাইটে প্র’কাশিত একটি প্র’তিবেদনের প্রেক্ষিতে লেখক তসলিমা নাসরিন ফেসবুক পেজে তাঁর কিছু ভাবনা পোস্ট ক’রেছেন। এখানে সেটি হুবহু তুলে ধ’রা হল। না’রীদিবসে না’রীদের জন্য পু’রুষের প্রতিষ্ঠান থেকে চমৎকার এক উপহার বটে!

সেই আদিকাল থেকে পত্’রিকায়-ম্যা’গাজিনে প’ড়ে আসছি’ রেডিও টিভিতে শুনে আসছি ম’হিলাদের গো’পনা’ঙ্গে নাকি বি’ষম দুর্গন্ধ। এই দু’র্গন্ধ দূ’র ক’রতে পুরো মানবজাতি আদা জল খেয়ে লে’গেছে। কত রকমা’রি কারণ যে বের ক’রা হচ্ছে দু’র্গন্ধের! কত রকমা’রি সমাধানও বের ক’রা হচ্ছে! যো’নীর ন্’যাচারাল গ’ন্ধকে ‘দু’র্গন্ধ’ নামে ডাকা হয়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *